শিল্পকারখানার সংশ্লিষ্টতায় শিক্ষা

শিল্পকারখানার সংশ্লিষ্টতায় হাতে-কলমে শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা স্ব-স্ব বিষয়ে অভিজ্ঞ প্রকৌশলী কর্তৃক আধুনিক যন্ত্রপাতির ব্যবহার ও কাজের পরিবেশ সর্ম্পকে বাস্তব ধারণা অর্জন করে। অর্জিত জ্ঞান দক্ষ প্রকৌশলী হতে সহায়ক হিসেবে কাজ করে।

গেস্ট স্পিকারের মাধ্যমে শিক্ষাদান

শ্রেণীকক্ষে শিক্ষার্থীরা শিল্প কারখানার অভিজ্ঞ প্রকৌশলী কর্তৃক অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি ও তার ব্যবহার সম্পর্কে শিক্ষা গ্রহণের ফলে কর্মক্ষেত্রে প্রবেশের সাথে সাথে দৃঢ়তা ও সাহসিকতার মাধ্যমে কাজ করতে সক্ষমতা অর্জন করে।


সৃজনশীল মেধার বহিঃ প্রকাশ

উদ্ভাবনী মেলা, বিজ্ঞান মেলা ও ডিজিটাল মেলায় অংশগ্রহনের মাধ্যমে স্ব-স্ব টেকনোলজির শিক্ষার্থীরা তাদের উদ্ভাবনী যন্ত্রপাতি জনসম্মুখে তুলে ধরে সৃজনী মেধার বহিঃপ্রকাশ করে। পরবর্তীতে উক্ত শিক্ষার্থীরা এক পর্যায়ে উদ্ভাবক হিসেবে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হয়, যা আধুনিক বিশ্বায়নের মূল হাতিয়ার।

সহশিক্ষা কার্যক্রম


🔴ওরিয়েন্টেশনঃ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে প্রতিবছর নবাগত শিক্ষার্থীদের নিয়ে ওরিয়েন্টশন ও কলেজ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়। দেশ বরেণ্য আলোকিত অতিথিবৃন্দের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানটি প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে।



🔴 জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস এবং জাতীয় উৎসব পালনঃ সকল জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন এবং উৎসবমুখর পরিবেশে জাতীয় উৎসব পালনসহ ধর্মীয় অনুষ্ঠান ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী স্বরস্বতী পূজা এছাড়া 🔸 মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বিরোধী আলোচনা সভা 🔸 বনভোজন 🔸 শিক্ষা সফর 🔸 দেয়ালিকা ও রোভার স্কাউট-এ শিক্ষার্থীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমে নেতৃত্বের সক্ষমতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।


🔴বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানঃ তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক শিক্ষার একঘেয়েমিতা থেকে উদ্যমী হতে প্রতি বছর আন্তঃ কলেজ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়ে থাকে।

চাকরি ও উদ্যোক্তা মেলা


শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন শেষ হওয়ার সাথে সাথে প্রতিবছর Job Placement Cell I Industrialization Consultation Corner- এর সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত হয় চাকরি ও উদ্যোক্তা মেলা। পরিশেষে মেলাটি বেকারত্বের অভিশাপ থেকে সকলকে মুক্ত রাখার এক মিলন মেলায় পরিনত হয়।


স্কলারশীপে অধ্যয়ন


Higher Education Help Desk এর মূল লক্ষ্য পাশকৃত শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষায় এগিয়ে নেওয়া। সার্বিক সহযোগীতা ও প্রচেষ্টায় ২০১৯ সনে সরকারি স্কলারশীপে চীনের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮ জন, DUET ও BTEC-এ ৫ জন এবং বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত আছে।


সেমিনার ও অভিভাবক মিলনমেলা


মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষক ও বিভিন্ন পেশার মানুষের স্ব-নির্ভরতায় প্রযুক্তিগত শিক্ষা স্লোগানের উপর সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেমিনার এবং ছাত্র/ছাত্রীদের লেখাপড়ার মান উন্নয়নে প্রতি বছর অভিভাবক মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়।


দেশ-বিদেশে শিক্ষক প্রশিক্ষণ


কাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজে দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের গুরুত্ব অপরিসীম। সে লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের জন্য সংশ্লিষ্ট বিষয় বিশেষজ্ঞ দ্বারা ২০১৭ সাল থেকে সরকারি অর্থায়নে প্রতিষ্ঠানের ভেন্যুতে In-House-Training শুরু হয়। তাত্তি¡ক ও ব্যবহারিক ক্লাসের গুনগতমান বৃদ্ধি ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা দানের লক্ষ্যে ঢাকার IUT, TTTC ও BITAC-থেকে প্যাডাগোজিক্যাল, পিএলসি, অটোক্যাড, অটোমোবাইল, মেশিনশপ, Gear & Suprocket Mananufacture এবং Cyber Security & Ethics এর উপর শিক্ষকবৃন্দ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে। এছাড়া সিঙ্গাপুরের Nanyang Polytechnic Institute (NYPi )-থেকে Inovation In Teaching & Learning এর উপর বাছাইকৃত শিক্ষকবৃন্দ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত হয়।


কারিগরি প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র

পরিচালনায়


🔴খানজাহান আলী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মহাবিদ্যালয়
🔴খানজাহান আলী জুট এন্ড টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট
🔴 খুলনা মেডিকেল ইন্সটিটিউট
🔴খানজাহান আলী কৃষি কলেজ


শিক্ষার্থীদের হাতে-কলমে শিক্ষা প্রদানে কারিগরি প্রশিক্ষণ ও গবেষনা কেন্দ্রে নির্মিত হয়েছে অত্যাধুনিক ল্যাব ও ওয়ার্কশপ। বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও খেলাধুলার জন্য রয়েছে অডিটোরিয়াম ও খেলার মাঠ।


প্রাক্তন শিক্ষার্থীর স্মৃতিচারণ

শুরুটা ছিল আমাদের খুলনা শহরের প্রাণকেন্দ্র ও ব্যস্ততম এলাকা শিববাড়ী মোড়ের টিসিবি ভবনে। এক বছর পর নবীনদের আগমনে স্থান সংকুলান না হওয়াতে আমাদের পরবর্তী সেমিষ্টার গুলোর লেখাপড়া চলে নিকটবর্তী মজিদ স্মরণী রোডের ইয়াহিয়া সাহেবের ভবনে। বাংলাদশে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক প্রকাশিত ফলাফলে আমরাই ছিলাম সেরা। বাঁধ ভাঙ্গা আনন্দের সাথে সাথে বিদায়ের কথা মনে করে হৃদয়টা যেন হতে থাকে ফাঁকা। পেশা ও লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নে চাকরির পাশাপাশি উচ্চ শিক্ষাও শেষ করি। সংসার জীবনে ব্যস্ততম সময়ে সিনিয়র-জুনিয়র মিলে গিয়েছিলাম আমাদের মহাবিদ্যালয়ের বয়রা স্থায়ী ক্যাম্পাসে, যোগ দিয়েছিলাম “অমর একুশে ফেব্রুয়ারী”-এর প্রভাত ফেরীতে। প্রতিদিনের চলার পথে সকল ভাবনার দোলাচলে আজও মনে পড়ে খানজাহান আলী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মহাবিদ্যালয়কে।


ডিপ্লোমা শিক্ষার গুরুত্ব


বর্তমান বিশ্ব প্রযুক্তি নির্ভর। যে দেশের যত বেশী জনগণ প্রযুক্তি শিক্ষায় শিক্ষিত সে দেশ তত বেশী উন্নত। জাপান ও জার্মান-এর ৮৫% জনগণ প্রযুক্তি শিক্ষায় শিক্ষিত, সেখানে আমরা ১২% এ উন্নীত হয়েছি মাত্র।

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং পাশের পর সরকারি চাকরিতে ২য় শ্রেণীর কর্মকর্তা হিসাবে নিয়োগ, দেশ-বিদেশের বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে উচ্চ বেতনে চাকরি, এবং উচ্চ শিক্ষার সুযোগ রয়েছে দেশ-বিদেশের প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে।

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের কর্মক্ষেত্র সারা বিশ্বে, সাধারন শিক্ষায় শিক্ষিতদের কর্মক্ষেত্র শুধু মাত্র নিজ দেশে। দেশ তথা নিজের উন্নতির মূল কারিগর হল কারিগরি তথা ডিপ্লোমা শিক্ষা।


২০১৮ ও ২০১৯ সনে উত্তীর্ণ শিক্ষাথীদের চাকরি, উদ্যোক্তা ও দেশে-বিদেশে উচ্চ শিক্ষা সহায়তায় অন্যতম প্রতিষ্ঠান



খানজাহান আলী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মহাবিদ্যালয়

কলেজ কোড-৩৫০৪৯
৯৩, মুজগুন্নী আ/এ,বয়রা মহাসড়ক,খুলনা।
মোবাঃ ০১৭১৩-২২৬৪০২


বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড অধিভূক্ত খানজাহান আলী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মহাবিদ্যালয়, ৯৩ মুজগুন্নী আ/এ, বয়রা, খুলনাতে ৭ তলা বিশিষ্ট দৃষ্টি নন্দন অত্যাধুনিক নিজস্ব ভবনে রাজনীতি ও ধূমপান মুক্ত মনোরম পরিবেশে ২০০৩ সাল থেকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের হাতে-কলমে শিক্ষা দেওয়ার জন্য মুজগুন্নী আ/এ, কে-১ প্লটের দেড় বিঘা জমির উপর নির্মিত হয়েছে কারিগরি প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র, এছাড়া ছাত্র/ ছাত্রীদের জন্য রয়েছে পৃথক আবাসন ব্যবস্থা।

এছাড়া, এইচএসসি/ সমমান/ ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং পাশের পর পেশা ভিত্তিক উচ্চ শিক্ষার সুযোগ সৃষ্টিতে ২০০৮ সালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে খানজাহান আলী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মহাবিদ্যালয়ে ৪ বছর মেয়াদী অনার্স (প্রফেশনাল) বিবিএ এবং বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং সিএসই ও ইসিই কোর্স চালু করা হয়।


সাফল্য- ২০১৯

🔴 প্রায় ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কারিগরি প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রে নির্মিত হয়েছে অত্যাধুনিক ল্যাব,ওয়ার্কশপ, অডিটোরিয়াম ও খেলার মাঠ।

🔴 সিসি ক্যামেরা নিয়ন্ত্রিত ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদেরকে স্মার্ট বোর্ড ও মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে শ্রেণীকক্ষে পাঠদান। টিউশন ফিস গ্রহনসহ সকল ধরনের লেন-দেনে স্বচ্ছতায় শুরু হয়েছে অনলাইন ব্যাংকিং ব্যবস্থা।

🔴 জব ফেয়ারে অংশগ্রহনকারী অত্র মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যথেকে তাৎক্ষনিকভাবে ২৭৫ জন শিক্ষার্থী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকুরীতে নিয়োগ পায় এবং Memorandum of Understanding (MOU)- এর মাধ্যমে বাকীদের পরবর্তীতে চাকরি প্রদানের ব্যবস্থা ও অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং ও ট্যুরের সুযোগ বৃদ্ধি করা হয়।

🔴 ডুয়েট এবং বিটেকে ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং-এ ৩ জন এবং সরকারি স্কলারশীপে ০৮ জন শিক্ষার্থী চীনের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের সুযোগ পেয়েছে।


৪ বছর মেয়াদী, ডিপ্লোমা কোর্স সমূহঃ
কোর্স ফিস
কম্পিউটার
মেকানিক্যাল
ইলেকট্রিক্যাল
সিভিল
মেরিন
টেক্সটাইল
বিবরণ
হার
সংখ্যা
পরিমান
  ভর্তি ফিস   ৬,০০০/-  
  সেমিস্টার ফিস   ৫,০০০/-   ৭   ৩৫,০০০/-
  মাসিক বেতন   ২,১০০ X ৬   ৭   ৮৮,২০০/-
  প্রতি সেমিস্টার মোট কোর্স ফিস   ১৭,৬০০/-   প্রতি সেমিস্টারের মধ্যে
  পরিশোধ করতে হবে
মোট কোর্স ফিস ৭ম সেমিস্টারের মধ্যে পরিশোধ যোগ্যঃ ১,২৯,২০০/-  


৪ বছর মেয়াদী, ডিপ্লোমা কোর্স সমূহঃ
কোর্স ফিস
ইলেকট্রো মেডিকেল
রেফ্রিজারেশন
শিপ বিল্ডিং
অটোমোবাইল
ফুড
আর্কিটেকচার
ট্যুরিজম
ইলেকট্রনিক্স
গার্মেন্টস
বিবরণ
হার
সংখ্যা
পরিমান
  ভর্তি ফিস   ৬,০০০/-  
  সেমিস্টার ফিস   ৫,০০০/-   ৭   ৩৫,০০০/-
  মাসিক বেতন   ১,২০০ X ৬   ৭   ৫০,৪০০/-
  প্রতি সেমিস্টার মোট কোর্স ফিস   ১২,২০০/-   প্রতি সেমিস্টারের মধ্যে
  পরিশোধ করতে হবে
মোট কোর্স ফিস ৭ম সেমিস্টারের মধ্যে পরিশোধ যোগ্যঃ ৯১,৪০০/-  

এস.এস.সি/সমমান পাশের পর বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড অধিভূক্ত ২ বছর মেয়াদী এইচ.এস.সি (বিএম) কোর্স চালু করা রয়েছে। নিম্নোক্ত কোর্স সমূহ।
২ বছর মেয়াদী, এইসএসসি (বিএম)
কোর্স ফিস
কম্পিউটার অপারেশন
হিসাবরক্ষণ
বিবরণ
হার
সংখ্যা
পরিমান
  ভর্তি ফিস   ১,৫০০/-  
  বর্ষ ফিস   ১,৫০০/-   ২   ৩,০০০/-
  মাসিক বেতন   ৩০০X১২   ২   ৭,২০০/-
মোট কোর্স ফিসঃ ১১,৭০০/-  

দক্ষতার মান উন্নয়ন করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড অধিভূক্ত ৬ ও ৩ মাস মেয়াদী সার্টিফেকেট কোর্স চালু করা রয়েছে। নিম্নোক্ত কোর্স সমূহ।
৬ ও ৩ মাস মেয়াদী সার্টিফেকেট কোর্স
কোর্স ফিস
ডাটাবেজ প্রোগ্রামিং
অফিস এ্যাপ্লিকেশন
বিবরণ
হার
সংখ্যা
পরিমান
  ভর্তি ফিস   ১,৫০০/-   কোর্স ফিস থেকে আলাদা
  মাসিক বেতন (৩ মাসের ক্ষেত্রে)   ৯০০   ৩   ২,৭০০/-
  মাসিক বেতন (৬ মাসের ক্ষেত্রে)   ৮০০   ৬   ৪,৮০০/-

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভূক্ত ৪ বছর মেয়াদী, অনার্স (প্রফেশনাল)/বিএসসি ইঞ্জিঃ কোর্স সমূহঃ
৪ বছর মেয়াদী, অনার্স (প্রফেশনাল)/
বিএসসি ইঞ্জিঃ কোর্স সমূহঃ
কোর্স ফিস
ভর্তি ফিস
সেমিস্টার প্রতি কোর্স ফিস
সর্বমোট কোর্স ফিস
● বি.বি.এ
  (ব্যাচেলর অব বিজনেস এ্যাডমিনিষ্ট্রেশন)
● সি.এস.ই
  (কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং)
● ই.সি.ই
  (ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং)
সেমিস্টার ফিস
মাসিক বেতন
মোট কোর্স ফিস
৭ম সেমিস্টারের মধ্যে
পরিশোধ যোগ্য
  ৬,০০০/-   ৮,০০০/-   ৩,০০০X৬   ২৬,০০০/-   ১,৮৮,০০০/-
এইচ.এস.সি / সমমান / ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষায় নূন্যতম জিপিএ- ২.৫


খানজাহান আলী কৃষি কলেজ

কলেজ কোড-৩৫০৮০
শলুয়া, ডুমুরিয়া, খুলনা।
মোবাঃ ০১৭১৩-২২৬৪০৩

২০০৪ সাল থেকে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে খানজাহান আলী কৃষি কলেজে চার বছর মেয়াদী এগ্রিকালচার ও ফিসারিজ ডিপ্লোমা শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। কর্তৃপক্ষের সহযোগীতায় চ‚ড়ান্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রায় সকলে দেশে-বিদেশে সরকারি-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকুরী, উচ্চ শিক্ষা এবং অনেকে স্ব-অর্থায়নে ডেয়ারী ফার্ম, মৎস্য খামার ও নার্সারীসহ কৃষি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান তৈরীর মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়েছে। অত্র প্রতিষ্ঠানটি ২০১৯ সালে এমপিও ভুক্ত হয়।

৪ বছর মেয়াদী, কৃষি ডিপ্লোমা কোর্স
কোর্স ফিস
ভর্তি ফিস
সেমিস্টার প্রতি কোর্স ফিস
সর্বমোট কোর্স ফিস
● এগ্রিকালচার
● ফিসারিজ
সেমিস্টার ফিস
মাসিক বেতন
মোট কোর্স ফিস
৭ম সেমিস্টারের মধ্যে
পরিশোধ যোগ্য
  ৬,০০০/-   ৩,০০০/-   ১,০০০ X ৬   ৯,০০০/-   ৬৯,০০০/-


খুলনা মেডিকেল ইন্সটিটিউট

কলেজ কোড-৩৫১১৬
কে/১,মুজগুন্নী আ/এ,বয়রা,খুলনা।
মোবাঃ ০১৭১৩-২২৬৪০৪

২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত অত্র প্রতিষ্ঠানটিতে চার বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-ইন-হেলথ টেকনোলজি কোর্স চালু করা হয়। মানুষের জন্য সেবাদানকারী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই শিক্ষার ব্যবহারিক অংশ সরকারী-বেসরকারী হাসপাতাল, ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টারে শিক্ষা দেওয়া হয়। চুড়ান্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের দেশে-বিদেশে চাকরি ও উচ্চ শিক্ষায় পর্যাপ্ত সুযোগ রয়েছে।

৪ বছর মেয়াদী, ডিপ্লোমা-ইন-মেডিকেল কোর্স সমূহঃ
কোর্স ফিস
ভর্তি ফিস
সেমিস্টার প্রতি কোর্স ফিস
সর্বমোট কোর্স ফিস
● ল্যাবরেটরী (প্যাথলজী)
● ডেন্টাল
● নার্সিং
● ফার্মেসী
সেমিস্টার ফিস
মাসিক বেতন
মোট কোর্স ফিস
৭ম সেমিস্টারের মধ্যে
পরিশোধ যোগ্য
 ৬,০০০/-  ৩,০০০/-  ১,৫০০X৬  ১২,০০০/-   ৯০,০০০/-
  ১ বছর মেয়াদী সার্টিফিকেট-ইন-প্যারামেডিকেল টেকনোলজি  ৬,০০০/-  ১,৫০০X৬  ১২,০০০/-   ৩০,০০০/-


খানজাহান আলী জুট এন্ড টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট

কলেজ কোড-৩৫৮১৩
দেয়াড়া, দিঘলিয়া, খুলনা।
মোবাঃ ০১৭১৩-২২৬৪০৫

অত্র ইন্সটিটিউটের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো দেশে-বিদেশের চাহিদার প্রেক্ষিতে জুট টেকনোলজিতে আধুনিক জ্ঞান সম্পন্ন মধ্যম স্তরের দক্ষ জনশক্তি তৈরী করা। যারা উচ্চ ডিগ্রী সম্পন্ন ইঞ্জিনিয়ারদের উদ্ভাবিত প্রযুক্তি বাস্তবায়নের কাজে সহায়তা প্রদান করবে এবং একই সাথে উৎপাদন কর্মকান্ডের সাথে জড়িত দক্ষ কর্মকুশলীদের কাজের তত্ত¡াবধায়ন করবে।র্ণদের দেশে-বিদেশে চাকরি ও উচ্চ শিক্ষায় পর্যাপ্ত সুযোগ রয়েছে।

৪ বছর মেয়াদী, জুট কোর্স
কোর্স ফিস
ভর্তি ফিস
সেমিস্টার প্রতি কোর্স ফিস
সর্বমোট কোর্স ফিস
● জুট
সেমিস্টার ফিস
মাসিক বেতন
মোট কোর্স ফিস
৭ম সেমিস্টারের মধ্যে
পরিশোধ যোগ্য
  ৬,০০০/-   ৫,০০০/-   ১,০০০X৬   ১১,০০০/-   ৮৩,০০০/-

ভর্তিঃ

বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড পরিচালিত ৪ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা, ২বছর মেয়াদী এইচএসসি (বিএম), ১ বছর, ৬ ও ৩ মাস মেয়াদী সার্টিফিকেট কোর্সে ভর্তির ন্যূনতম যোগ্যতা এসএসসি/ দাখিল/ ভোকেশনাল/ সমমান পরীক্ষায় পাশ।


বৃত্তিঃ

২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ডিপ্লোমা ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের এসএসসি/ দাখিল/ ভোকেশনাল/ সমমান পরীক্ষায় পাশের জিপিএ অনুসারে মাসিক বেতনে ছাড় এছাড়া গরীব ও মেধাবীদের জন্য রয়েছে শিক্ষাবৃত্তি।


অন্যান্য ফিসঃ

রেজিস্ট্রেশন, পরীক্ষা, প্রত্যয়নপত্র, নম্বরপত্র, সনদপত্র, উৎসব ও অন্যান্য ফিস সর্বমোট কোর্স ফিস থেকে আলাদা।